2014/10/31 at 5:12 PM
মূল আসামিদের আড়াঁল করতে তারেকের নাম বলা হচ্ছে: খন্দকার মাহবুব

মূল আসামিদের আড়াঁল করতে তারেকের নাম বলা হচ্ছে: খন্দকার মাহবুব

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় মূল আসামিদের আড়াঁলের চেষ্টা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন।

আজ (শুক্রবার) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ রিপাবলিকান ফোরাম আয়োজিত প্রস্তাবিত ষষ্টদশ সংশোধনী বিল এবং মৌলিক অধিকার শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

খন্দকার মাহবুব বলেন, বিচারকে প্রভাবিত করতেই গ্রেনেড হামলার সঙ্গে বিএনপি’র সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে জড়িয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বক্তব্য দিচ্ছেন। তার এই ধরণের বক্তব্য বিচারকে বিঘ্নিত করবে।

তিনি আরও বলেন, বিচারকার্য চলার সময় তিনি আদালতকে প্রভাবিত করার জন্য যদি এ ধরণের বক্তব্য দেন তাহলে আমাদের দেশে আইনের শাসন কোথায় রয়েছে। একটা দেশের প্রধানমন্ত্রী এ ধরণের বক্তব্য দিয়ে আইন-আদালতকে অবমাননা করছেন। তাকে এ ধরণের বক্তব্যের জন্য অবশ্যই বিচারের মুখোমুখি হতে হবে। মূল আসামিদের আড়ালে রাখতেই রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে সরকার ১৭৫ জন আসামির তালিকা করেছে বলেও অভিযোগ করেন এ আইনজীবী।

বিচার বিভাগকে সম্পূর্ণ দলীয়করণের অভিযোগ তুলে মাহবুব হোসেন বলেন, বিচার বিভাগ স্বাধীন, কিন্তু বিচারকরা যাতে স্বাধীনভাবে বিচার করতে না পারে তার জন্য ভয় দেখানো হচ্ছে। বিচার বিভাগ স্বাধীনতার রক্ষাকবচ। তাই বিচার বিভাগের স্বাধীনতা ক্ষুন্ন হয়, সংবিধানে এমন সংশোধনী আনা থেকে সরকারকে বিরত থাকার আহবান জানান এ আইনজীবী।

তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগের সঙ্গে গণতন্ত্রের কোনো সর্ম্পক নেই। তারা যখনই ক্ষমতায় এসেছে তখনই গণতন্ত্রকে ধ্বংস করেছে। সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে ধ্বংস করেছে। তারা যা করছে সবই ইতিহাসের সাক্ষী। জিয়াউর রহমান দেশের আইন ও স্বাধীনতা রক্ষা করেছে।

এদিকে, ক্ষমতাসীনরা সম্প্রচার নীতিমালা করে মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার কেড়ে নিতে চাইছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য লে. জেনারেল (অব.) মাহবুবুর রহমান। একই সঙ্গে তিনি জনগণের বাকস্বাধীনতা হরণ করতেই সরকার সম্প্রচার নীতিমালা করছে বলেও মন্তব্য করেন।

আজ (শুক্রবার) সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে এসব অভিযোগ করেন তিনি। সংবাদ মাধ্যমের কন্ঠরোধকল্পে জাতীয় সম্প্রচার নীতিমালা শীর্ষক এই মানববন্ধনের আয়োজন করে জাতীয়তাবাদী ঐক্য পরিষদ নামের একটি সংগঠন।

মাহবুবুর রহমান বলেন, সরকারের ক্ষমতায় থাকার নৈতিক অধিকার নেই। তারা চোরাবালির ওপর দাঁড়িয়ে আছে। যে কোনো সময়ে তাসের ঘরের মতো ভেঙ্গে পড়বে। সরকার অন্যায় অত্যাচার আর কালাকানুনের বিরুদ্ধে দেশের মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানান মাহবুবুর রহমান।

একটি কমেন্ট করুন Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

5 × 2 =

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>