2014/11/23 at 3:25 PM
অভিশংসন আইনে প্রধানমন্ত্রীর কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠা পাবে

অভিশংসন আইনে প্রধানমন্ত্রীর কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠা পাবে

বিচারপতিদের অভিশংসনের ক্ষমতা জাতীয় সংসদে গেলে প্রধানমন্ত্রীর কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠা পাবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া।

তিনি বলেন, বিচারপতিদের অভিশংসনের ক্ষমতা সংসদে গেলে বিচারকরা স্বাধীনভাবে সরকারের বিরুদ্ধে রায় দিতে পারবেন না। স্বাধীন ও সুষ্ঠুভাবে বিচারকরা যেন রায় না দিতে পারেন, সেজন্যই অভিসংশন আইন সংশোধন করা হচ্ছে।
রবিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এনডিপি) আয়োজিত এক মানববন্ধনে তিনি একথা বলেন। ‘বিচার বিভাগ দলীয়করণ ও সমপ্রচার নীতিমালার নামে গণতন্ত্রের টুটি চেপে ধরার’ প্রতিবাদে এ মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

রফিকুল ইসলাম মিয়া বলেন, সংসদে যদি অভিশংসনের ক্ষমতা থাকত, তবে নারায়ণগঞ্জের সেভেন মার্ডারের ঘটনায় র‌্যাব কর্মকর্তাদের গ্রেফতারের আদেশ দিতে পারত না।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার পিতার পদাঙ্ক অনুসরণ করছেন মন্তব্য করে এ বিএনপি নেতা বলেন, শেখ মুজিবুর রহমান বাকশাল প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে সরাসরি একনায়কতন্ত্র কায়েম করেছিলেন। আর তার কন্যা শেখ হাসিনা কৌশলে একনায়কতন্ত্র কায়েম করছেন। অথচ শেখ মুজিবুর রহমান নিজেই অভিশংসনের ক্ষমতা পার্লামেন্ট থেকে ছিনিয়ে নিয়ে এ ক্ষমতা রাষ্ট্রপতির হাতে ন্যস্ত করেছিলেন।

‘বর্তমান সংসদকে অকার্যকর’ আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, বর্তমান সংসদ এমন একটি সংসদ- যেখানে বিরোধী দলের নেতারা সরকারের সদস্য। জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত। আবার তার দলই সংসদে বিরোধী দল। সংসদীয় গণতন্ত্রের ইতিহাসে পৃথিবীতে এমন নজির নেই। আর সেই সংসদেই এমন একটি আইন করা হচ্ছে, যার কোনো ভিত্তি নেই। জনগণের সমর্থন নেই। যার কোনো অস্তিত্ব নেই।

এনডিপি সভাপতি খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তজার সভাপতিত্বে কর্মসূচিতে অন্যদের মধ্যে বাংলাদেশ ন্যাপ’র মহাসচিব এম গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া, বাংলাদেশ লেবার পার্টির সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, ইসলামিক পার্র্টির সভাপতি এডভোকেট আবদুল মোবিন, এনডিপির মহাসচিব আলমগীর মজুমদার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

একটি কমেন্ট করুন Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

2 × 1 =

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>