2014/10/31 at 12:45 PM
২০১৬ সালের মধ্যে রাম মন্দির নির্মাণের দাবিতে মোদিকে চিঠি

২০১৬ সালের মধ্যে রাম মন্দির নির্মাণের দাবিতে মোদিকে চিঠি

ভারতের কয়েকটি রাজ্যে বিধানসভার নির্বাচন যতই এগিয়ে আসছে একে একে বিতর্কিত এজেন্ডাগুলোও সামনে আনছে হিন্দুত্ববাদী দল বিজেপি। হিন্দু রাষ্ট্র, হিন্দুত্ব ইত্যাদি নিয়ে দেশজুড়ে নানা সমালোচনার মধ্যেই এবার রাম মন্দির ইস্যু সামনে আনল বিজেপি। ২০১৬ সালের মধ্যে রাম মন্দির নির্মাণের কাজ শুরু করার দাবি জানালেন বিজেপি নেতা সুব্রমনিয়াম স্বামী। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে তিনি চিঠি এ বিষয়ে নানা পরামর্শ দিয়েছেন। সুব্রমনিয়াম স্বামী তাঁর চিঠিতে বলেছেন, সমর্থকদের কাছে দেয়া প্রতিশ্রুতি পূরণ করার জন্য অবিলম্বে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে হবে।

উল্লেখ্য, ১৬তম লোকসভা নির্বাচনের ইশতেহারে অযোধ্যায় বাবরী মসজিদের স্থানে রাম মন্দির নির্মাণের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল বিজেপি।

সুব্রমনিয়াম স্বামী প্রধানমন্ত্রীর কাছে লেখা চিঠিতে পরামর্শ দিয়েছেন, প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে এস এইচ কাপাডিয়ার মত সাবেক প্রধান বিচারপতিকে পরিচালক হিসেবে নিযুক্ত করা যেতে পারে। জেনারেল ভি কে সিং-এর মতো মন্ত্রীর সঙ্গে সমন্বয় করে এই কাজ এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে।
তিনি আরো বলেন, দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী বাবরি মসজিদের বংশগত রক্ষণাবেক্ষণকারীকে নোটিশ দিয়ে তাকে রামজন্ম ভূমির ওপর থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে দাবি প্রত্যাহার করতে বলতে হবে।

এর পরিবর্তে বিজেপির ওই নেতা বিকল্প প্রস্তাবও দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, বাবরী মসজিদের পরিবর্তে সরযূ নদীর ওপারে বিকল্প মসজিদ নির্মাণের জন্য মুসলমানদের জায়গা দেয়া যেতে পারে। এ বিষয়ে মতৈক্যে পৌঁছানোর জন্য তিনি দেশ-বিদেশের মুসলিম পণ্ডিতদের নিয়ে বৈঠক করার আহ্বান জানান। সুব্রমনিয়াম স্বামী বলেন, এভাবে সমস্যার সমাধান করা না গেলে সরকারের উচিত সংসদে বিল এনে এ সংক্রান্ত আইন পাস করা এবং সোমনাথ মন্দির পুনর্নির্মাণের মত রাম মন্দির পুনর্নির্মাণ সমিতি গঠন করা।

উল্লেখ্য, গত মে মাসে আরএসএস নেতা এম জি বৈদ্যও রাম মন্দির নির্মাণের দাবি জানান। এর আগে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ নেতা প্রবীণ তোগাড়িয়া বলেছিলেন, রাম মন্দির নির্মাণ বিশ্ব হিন্দু পরিষদের নিজস্ব এজেন্ডা। এই এজেন্ডা পুরণের জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের সহযোগিতার প্রয়োজন নেই। তিনি আরো বলেন, রাম মন্দির এদেশের মানুষের স্বপ্ন। এটা বাস্তবায়ন করতে দল যেকোনো ধরনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে প্রস্তুত রয়েছে।

একটি কমেন্ট করুন Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

fifteen + eighteen =

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>